মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৬:০৮ অপরাহ্ন

পশ্চিমবঙ্গে করোনার ভ্যাকসিন কর্মসূচি নিয়ে চরম দলীয় করনের অভিযোগ।

ভিন্নধারা ২৪ ডেস্ক / ৭১ বার পঠিত
সময় : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১, ১০:৪৭ অপরাহ্ণ

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে করোনার ভ্যাকসিন কর্মসূচি নিয়ে ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে চরম দলীয় করনের অভিযোগ উঠেছে। কলকাতার দৈনিক গন শক্তি প্রতিবেদন করেছে,

বিরোধীদের কেন ভ্যাকসিন দেওয়া হবে?’ এই প্রশ্ন তুলে পঞ্চায়েতে টিকাকরণের কাজ ভণ্ডুল করে দিচ্ছে তৃণমূল। টিকা নিতে লাইনে দাঁড়ানো গ্রামবাসীদের মাস্ক খুলে ‘নিজেদের’ কিনা খতিয়ে দেখছে তৃণমূলের বাহিনী। এমনকি টিকার কুপন হাতে থাকলেও তৃণমূল সমর্থক নয় বলে ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে গ্রামবাসীদের। যে টিকাকরণ সবার হওয়ার কথা, তা এখন তৃণমূলের জন্য করার উদ্যোগ নিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর দলের নেতা, কর্মীরা। ৭৭টি আসন পাওয়া বিজেপি’র নেতা, কর্মীদের খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। এই অবস্থায় সেই সিপিআই(এম) কর্মীদের কাছেই নিজেদের ক্ষোভ জানাচ্ছেন গ্রামবাসীরা। ৪৫ ঊর্ধ্বদের ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। বিভিন্ন হাসপাতালে প্রচুর মানুষের ভিড় হচ্ছে। তাই ভিড় নিয়ন্ত্রণে আনতে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ কুপন বিলি করছে। প্রতিটি ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্র থেকে আশাকর্মীদের কাছে কিছু কুপন দেওয়া হচ্ছে। সেক্ষেত্রে অগ্রাধিকার বয়স। অর্থাৎ বেশি থেকে কম বয়স এই ক্রমানুসারে কুপন দেওয়ার কথা। কিন্তু বেঁকে বসেছে তৃণমূল। চণ্ডীপুরের ঈশ্বরপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা ৬৬ বছরের তপন মাইতির অভিযোগ, ‘‘আমাকে বাড়িতে এসে আশাকর্মী কুপন দিয়ে যান। তারপরই এলাকার এক তৃণমূল নেতা এসে আমার কাছ থেকে কুপন ফেরত নিয়ে যায়। সে বলেছে এখন নাকি আমাদের জন্য টিকা নয়। টিকা পঞ্চায়েত সদস্যদের জন্য। আমি কুপন ফেরত দিতে বাধ্য হই। কিন্তু এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানতে পারি আমার থেকে অনেক কম বয়স এমন অনেকে শুধুমাত্র তৃণমূলের কর্মী হওয়ায় টিকা পেয়েছে।’’ কেন বিরোধীরা টিকা পাবে? এই প্রশ্ন তুলে দু’দিন আগে ব্যবর্ত্তারহাট পশ্চিম গ্রাম পঞ্চায়েতে দলবল নিয়ে চড়াও হন বিধায়ক সুকুমার দে’র ঘনিষ্ঠ তৃণমূল নেতা শিবপ্রসাদ সামন্ত। স্বাস্থ্য দপ্তরের নির্দেশ মতো ওই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাতেও টিকাকরণ চলছে গ্রাম পঞ্চায়েত দপ্তরেই। কুপন পেয়ে লাইন দিয়ে টিকা নিচ্ছিলেন স্থানীয়রা। এই গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা লালচাঁদ ভৌমিক বলেন, ‘‘হঠাৎই তৃণমূল নেতা শিবপ্রসাদ সামন্ত এসে হুমকি দিতে থাকে এবং প্রত্যেকের কুপন কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এমনকি মাস্ক খুলে প্রত্যেককে মুখ দেখাতে বলে। এরপর টিকাকরণের কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দেয়। তৃণমূল নেতা বলে, শুধুমাত্র তৃণমূলকে যারা ভোট দিয়েছে, তাদেরকেই টিকা দেওয়া হবে।’’ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অপর এক ব্যক্তি বলেন ‘‘আমাদের বাড়িতে আশাকর্মী কুপন পৌঁছে দিয়ে এসেছেন। আমরা সকাল থেকেই লাইনে দাঁড়িয়ে ছিলাম। হঠাৎ ঝামেলা হয়। প্রায় আধ ঘণ্টার মতো টিকা দেওয়া বন্ধ ছিল।’’ এমন ঘটনা সামনে আসায় রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে নন্দকুমার ব্লক এলাকায়। তা নিয়ে ক্ষোভ তৈরি হচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে। নন্দকুমার ব্লকের বিডিও শানু বকশি বলেন, ‘‘ভ্যাকসিন দেওয়ার ক্ষেত্রে অগ্রাধিকার বয়স্কদের। কুপনও তাঁদেরই আগে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি, এই করোনা পরিস্থিতিতে যাঁরা সামনে থেকে সরকারি ও আপৎকালীন পরিষেবা সাধারণ মানুষকে প্রদান করছেন এমন ব্যক্তিদেরও ভ্যাকসিন দেওয়ার কথা সরকারি নির্দেশিকায় বলা হয়েছে। তবে এমন অভিযোগ যদি সামনে আসে সে বিষয়ে খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’’ নন্দকুমারের খেজুরবেড়িয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আশাকর্মীর স্বীকারোক্তি, ‘‘এলাকার তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য বা তৃণমূল নেতাদের কথাতেই শুধুমাত্র তৃণমূল কর্মী এবং সমর্থকদের বাড়িতে কুপন দিচ্ছি আমরা। তৃণমূলের নেতাদের কথা না শুনলে সমস্যা তৈরি হবে। তাই বাধ্য হয়েই আমরা তাঁদের কথামতোই কুপন বিলি করছি।’’ এই জেলার তমলুক গ্রামীণ, মহিষাদল, নন্দীগ্রাম, চণ্ডীপুর ব্লকেও এমন ঘটনা সামনে আসছে। মহিষাদলের অমৃতবেড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা ৪৬ বছরের তুষার সাউ টিকা পেলেও একই এলাকার বাসিন্দা ৬৯ বছরের গোকুল ধাড়া পাননি। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য অধিকর্তা বিভাস রায়ের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, ‘‘এই করোনা পরিস্থিতিতে ভিড় এড়াতে কুপন বিলি করে টিকা দেওয়ার কাজ চলছে। যেমন টিকা জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরে আসছে সেগুলিকে ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলিতে বণ্টন করা হচ্ছে। বয়স্কদের ও করোনায় জরুরি পরিষেবা দিচ্ছেন এমন অংশকে অগ্রাধিকারে রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’’ সেই নির্দেশ অবশ্য অমান্য করছে তৃণমূলই।


সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD